মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ভবিষ্যত পরিকল্পনা

১। নিরবিছিন্ন সেবা প্রাপ্তিতে জনসাধারণকে উদ্বুদ্ধ করতে প্রচারণা চালানো।

২। অনলাইন আবেদনে অধিক সংখ্যক জনগণকে সম্পৃক্ত করণ।

৩। পাসপোর্ট ফি অনলাইন ব্যাংকে জমাদানের হার বৃদ্ধি করণ।

৪। বিদ্যমান দক্ষ জনবল ও প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করণ।

৫। স্যোসাল মিডিয়ার মাধ্যমে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করা।

৬। দ্রুততম সময়ে ই-পাসপোর্ট সেবা চালুকরণ।

 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter